ফেসবুক মার্কেটিং করার সঠিক উপায়

বর্তমানে ফেসবুক মার্কেটিং হচ্ছে অনলাইন আয় করার সবচাইতে জনপ্রিয় মাধ্যম। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষ সঠিক ভাবে ফেসবুক মার্কেটিং করতেই পারেন না। আমি এখানে ফসবুকে মার্কেটিং করার দারুন একটি পদ্ধতির কথা বলব।

ফেসবুক মার্কেটিং  কি, এই মার্কেটিং করার সঠিক উপায়

এই লেখাটি যিনি পড়বেন আশা করছি লেখাটি মন দিয়ে পড়বেন। ব্যবসা চলে ব্যাক্তির জ্ঞান ইচ্ছা আর বুদ্ধির উপর। অর্থাৎ যিনি ব্যবসা করতে চাইছেন উনার ব্যবসা করার বিষয়টির উপর জ্ঞান থাকতে হবে ইচ্ছে থাকতে হবে এবং সঠিক বুদ্ধির প্রয়োগ করতে জানতে হবে।

 

আমি বললাম সাপের বিষের ব্যবসা দারুণ লাভের আর আপনি ঝাঁপিয়ে সাপ ধরতে নামলেন এটা নিশ্চয় ব্যবসায়িক বুদ্ধি নয়। কিন্তু অনেকেই আবার এই ব্যবসাও করেন। না ভাই আমি দুনম্বরি ব্যবসা করতে বলছি না।

ফেসবুক মার্কেটিং


ফেসবুক মার্কেটিং কিঃ

ফেসবুক মার্কেটিং কি এটা আগে ভালভাবে বুঝুন। ফেসবুকে আপনি নিজের নাম, ব্যবসা, প্রোডাক্ট যা খুশির প্রচার করতে পারেন। এই প্রচার করাটাই হচ্ছে মার্কেটিং। আপনি যদি কোনও প্রোডাক্টের প্রচার  করেন সেটাও হবে মার্কেটিং করা। সমস্ত সোশাল মিডিয়ায় প্রচার করলে হবে “সোশাল মিডিয়া মার্কেটিং”। আর শুধু ফেসবুকে প্রচার করলে হবে ফেসবুক মার্কেটিং।  আশাকরি বিষয়টা বুঝিয়ে দিতে পেরেছি।     

আমি আমার নিজস্ব একটি ব্যবসায়িক পরিকল্পনার বুদ্ধি দিচ্ছি। যেখান থেকে আমি ইনকাম করি। পেশায় আমি অধ্যাপক। নেশায় আমি সাহিত্যিক। সাহিত্য আর অর্থের নেশায় আমি ব্লগার 😁। আমার ব্লগের সংখ্যা অনে…ক।

অনলাইন ফেসবুক মার্কেটিং

যাই হোক আমি আমার বুদ্ধি দিচ্ছি। আগেই বলেছি এই বিষয়ে আপনার সামান্য জ্ঞান থাকতে হবে, ইচ্ছে থাকতে হবে এবং বুদ্ধির প্রয়োগ করতে হবে।

আমি ফেসবুকে রিসেল করার কথা বলছি। ফেসবুক আর রিসেল শুনেই পালিয়ে যাবেন না, কারণ আপনার সময় নষ্ট করার ইচ্ছে আমার মোটেও নেই।

অনেকেই ভাবেন বিভিন্ন প্রোডাক্টসের ছবি আর লিংক ফেসবুকে শেয়ার করলেই প্রচুর বিক্রি হবে, কিন্তু আসলে বিক্রিই হয় না। কারণ আপনার প্রোফাইলে যারা আছেন তারা আপনার কাছের মানুষ। আর কাছের মানুষ আপনার লাভ হবে এই গন্ধ পেলে জিনিস কেনা তো দূরের কথা আপনার দরজায় হিসু করতেও বাহানা বানাবে 😉

তাই নিজের প্রোফাইলে কিছু শেয়ার করবেন না, এতে লজ্জিত হবেন, লাভবান নয়।

এবার আমি আমার পদ্ধতির কথা বলি। এই রিসেলিং ব্যবসার জন্য দরকার,—

  • রিসেল করার ভাল প্রোডাক্ট। যা সেল করে আপনি ভাল ইনকাম করবেন। চিন্তা নেই অনেক এপ্লিকেশন আছে।
  • একটি গুগল ফ্রি সাইট
  • একটি ফ্রি ফেসবুক পেজ
  • আর ১০০০-২০০০ টাকা

জানি এবার আপনি ভাবছেন বাপ রে কী ঝামেলা, দরকার নেই। কিন্তু আপনাকে জানিয়ে রাখি এই ঝামেলা ৩০ মিনিটের। আর ইনকাম আজীবনের। মাসে যত খরচা করবেন তার ×১০ লাভ হবেই। আমি কতটাকা ইনকাম করি এই পদ্ধতিতে সেটা এখানে বলতে চাই না, তবে এটুকু বলব। আপনার কল্পনার চেয়ে বেশিই ইনকাম করি 😊 সবই আপনাদের কৃপা আর আমার অল্প বুদ্ধি 😉

পুরো বিষয়টা সহজ সরল ভাবে যদি জানতে বা বুঝতে চাইছেন তাহলে নিচের লিংকে গিয়ে বিস্তারিত ভাবে পড়ুন। আমি এক আর্টিকেল বারবার লিখতে আনন্দ পাচ্ছি না। নিচের লিংকে গিয়ে মন দিয়ে পড়বেন, একবারে না বুঝলে দুবার পড়বেন। তাও না বুঝলে কমেন্ট করে জিজ্ঞেস করবেন। তাতেও কাজ না হলে কল করবেন। আমি আপনার সঙ্গেই আছি এখানেও। ডান দিকের ঘন্টাটা বাজিয়ে রাখুন।

ফেসবুক থেকে আয় করার সঠিক পদ্ধতি

অনলাইন মার্কেটিং

দেখুন অনলাইনে আয় করা মানে পায়ের উপর পা চাপিয়ে কামানো নয়। সব জায়গাতেই প্রতিযোগিতা আছে। ফেসবুক মার্কেটিং এর বাইরে নয়। কিন্তু অনলাইনে খাটতে হবে আপনাকে বুদ্ধির দিয়ে। বুদ্ধি ছাড়া অনলাইনে টাকা ইনকাম অসম্ভব।

কীভাবে গুগল পে একাউন্ট খুলতে হয় শিখেনিন

ফেসবুক মার্কেটিং করার জন্য আপনাকে প্রোডাক্ট এমন নির্বাচন করতে হবে যা ছেলে-মেয়ে থেকে শুরু করে কমবয়স বেশিবয়স সবার ব্যবহার যোগ্য হয়। যেমন, চুলের তেল স্যাম্পু কিংবা দাঁতের প্রোডাক্ট।

এই প্রোডাক্ট সবাই ব্যবহার করতে পারবে এবং সারাবছর বিক্রি হবে। আশাকরি বিষয়টা বোঝাতে পেরেছি।

আপনার কোনওরকম জিজ্ঞাসা থাকলে আপনি কমেন্ট করে নির্দ্ধিধায় জিজ্ঞেস করতে পারেন, আপনার প্রত্যেকটি প্রশ্নের সঠিক এবং সময় মতো উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব।

Aegon life Term insurance সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে জানুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *