অটল পেনশন যোজনা কী ? কিভাবে অটল পেনশন যোজনা শুরু করা যায়

অটল পেনশন যোজনা বাংলা হল 2015 সালে ভারত সরকার কর্তৃক চালু হওয়া একটি নতুন পেনশন যোজনা। অটল পেনশন যোজনার মূল উদ্দেশ্য ছিল নিচু স্তরের মানুষকে পেনশন উপভোগ করানো।

অটল পেনশন যোজনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা

এই যোজনা বা প্রকল্পটি সমাজের নিচু স্তরের দুর্বল মানুষদের কে সাহায্য করার জন্য চালু করা হয়েছিল 2015 সালে। যে সমস্ত মানুষের বাৎসরিক ইনকাম সরকারি টেক্স এর আওতায় আসে না তারা যাতে পেনশন উপভোগ করতে পারে সেই জন্য এই সরকারি পেনশন যোজনা চালু করা হয়।

দিন আনা দিন খাওয়া মানুষদের জন্য এই পেনশন যোজনাটি চালু হলেও বর্তমানে ভারতবর্ষের প্রচুর মানুষ এই পেনশন যোজনার সঙ্গে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করিয়েছেন।

Read more:- অনলাইন ইনকাম করার সহজ পাঁচটি রাস্তা 

এই এই পেনশন যোজনার আওতায় আসার জন্য ব্যক্তির বয়স হতে হবে 18 বছর থেকে 40 বছরের ভেতর। অর্থাৎ 18 বছরের নিচে কিম্বা 40 বছরের উপরে এই পেনশন যোজনার আওতায় আসা সম্ভব নয়। এই পেনশন যোজনায় 5 রকমভাবে পেনশন নেওয়ার সুবিধা দেওয়া হয়েছে। পুরো বিষয়টি নিচে আমরা বিস্তারিতভাবে আলোচনা করেছি।

অনলাইন আয়

বাংলায় জেনেনিন অটল পেনশন যোজনার যোগ্যতা এবং আবেদন করার নিয়ম

আপনাকে অটল পেনশন যোজনার আওতায় আসতে হলে নিম্নলিখিত যোগ্যতা গুলি থাকতে হবে,-

  • এই পেনশন যোজনা শুধুমাত্র ভারতীয়দের জন্য।
  • বয়স সীমা 18 থেকে 40 বছরের ভেতর হতে হবে।
  • ব্যক্তির বৈধ আধার কার্ড থাকতে হবে।
  • বৈধ ব্যাংক একাউন্ট থাকতে হবে এবং ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার কার্ডের লিঙ্ক থাকতে হবে।

উপরে উল্লেখিত সমস্ত বিষয়গুলি ঠিকঠাক থাকলে আপনি আপনার নিকটবর্তী ব্যাংক কিংবা পোস্ট অফিসে গিয়ে অটল পেনশন যোজনার আওতায় নিজের নাম নথিভুক্ত করতে পারেন।

দেখুন অটল পেনশন যোজনা বাংলা,- বিনিয়োগ পদ্ধতি

নিচের ছবিটি থেকে আপনি জেনে নিতে পারবেন আপনার বয়স অনুযায়ী কত টাকা করে প্রতিমাসে জমা করলে আপনি 60 বছর বয়স হওয়ার পর কত টাকা করে পেনশন পাবেন।

অটল পেনশন যোজনা

ন্যূনতম বিনিয়োগ এবং সর্বোচ্চ বিনিয়োগ

আপনার সুবিধার্থে আপনাকে জানিয়ে রাখি ইতিমধ্যে ২ কোটি ৩০ লক্ষ মানুষ এই পেনশন যোজনার সঙ্গে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করিয়েছেন। আশা করি এটা থেকেই আপনারা বুঝতে পারছেন এই পেনশন যোজনার গুরুত্ব কতখানি।

অটল পেনশন যোজনার বিনিয়োগ বয়স অনুযায়ী বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে, তা নিশ্চয়ই উপরে দেওয়া ছবি থেকেই বুঝতে পারছেন। একজন 18 বছর বয়স্ক মানুষ যদি  60 বছর বয়স হওয়ার পর, মাসে 1000 টাকা করে পেনশন পেতে চান তাহলে প্রতি মাসে সেই ব্যক্তিকে 42 টাকা করে জমা করতে হবে। ওই একই ব্যক্তি যদি প্রতি মাসে 5000 টাকা করে পেনশন পেতে চান তাহলে উনাকে 210 টাকা করে প্রতিমাসে জমা করতে হবে।

কিন্তু একজন 40 বছর বয়স্ক মানুষ যদি ৬০ বৎসর হওয়ার পর প্রতি মাসে 1000 টাকা করে পেনশন পেতে চান তাহলে ওনাকে প্রতিমাসে জমা করতে হবে 264 টাকা করে। ওই একই ব্যক্তি যদি 5000 টাকা করে পেনশন পেতে চান তাহলে উনাকে প্রতিমাসে জমা করতে হবে তেরোশো 1318 টাকা করে।


আপনি প্রতিমাসে পেনশন নেওয়ার পরিবর্তে একসঙ্গেও টাকা নিতে পারেন। আপনার যদি প্রতিমাসে ১০০০ টাকার পেনশন স্কিম নেওয়া থাকে তাহলে একসঙ্গে টাকা নিলে পাবেন ১.৭ লাখ টাকা।  ২০০০ টাকার পেনশন স্কিম নেওয়া থাকলে একসঙ্গে পাবেন ৩.৪০ লাখ। ৩০০০ টাকার নেওয়া থাকলে পাবেন ৫.১০ লাখ। ৪০০০ টাকার নেওয়া থাকলে ৬.৮০ লাখ টাকা পাবেন। আর ৫০০০ টাকার স্কিম নেওয়া থাকলে পাবেন ৮.৫০ লাখ টাকা।


অটল পেনশন যোজনার কিছু নিয়ম

  1. আপনি যদি একবার এই পেনশন যোজনার সঙ্গে নিজেকে যুক্ত করে নেন তাহলে আর কোনও রকম ভাবে এই পেনশন যোজনা থেকে নিজেকে সরিয়ে নিতে পারবেন না। অর্থাৎ এই যোজনার সঙ্গে একবার যুক্ত হলে আপনাকে 60 বছর বয়স না হওয়া পর্যন্ত এ যোজনা চালিয়ে যেতে হবে।
  2. আপনি যত টাকার পেনশন যোজনা করবেন সেই টাকা প্রতি মাসের এক নির্দিষ্ট তারিখে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে কেটে নেওয়া হবে।
  3. যেদিন আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কাটার কথা সেদিন যদি আপনার ব্যাংকে টাকা না থাকে তাহলে আপনাকে পেনাল্টি দিতে হবে।
  4. আপনি যদি ক্রমাগত দু’বছর কোনওরকম টাকা পেমেন্ট না করেন তাহলে আপনার অ্যাকাউন্টটি বন্ধ হয়ে যাবে এবং আপনি একটি টাকাও ফেরত পাবেন না।
  5. আপনি বছরের যেকোনো সময় একবার আপনার স্কিমের টাকার পরিমাণ কমাতে কিংবা বাড়াতে পারেন। (এই নিয়ম নতুন এসেছে)
  6. এই পেনশন যোজনার সঙ্গে যুক্ত কোন ব্যক্তি যদি মারা যান কিংবা সারবেনা এরকম কোনও রোগে আক্রান্ত হন তাহলে তিনি তার পুরো টাকা চাইলে ফেরত পেয়ে যাবেন।

  7. এই পেনশন যোজনার সঙ্গে যুক্ত মানুষটি মারা গেলে ওনার স্বামী বা স্ত্রী পেনশন দাবি করতে পারেন।

পুরো বিষয়টি পড়ার পরেও আপনার মনে এই পেনশন যোজনা নিয়ে যদি কোনওরকম প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে আপনি আমাদের কমেন্ট বক্সে সরাসরি আপনার প্রশ্ন জিজ্ঞেস করতে পারেন। আমরা আপনাদের করা প্রতিটি প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিয়ে আপনাদেরকে সাহায্য করব।

🙏👉 আপনি যদি ঘরে বসে অনলাইনে ইনকাম করতে চাইছেন তাহলে আমাদের এই লেখাটা অবশ্যই পড়ুন,- Best earning application 2020

3 thoughts on “অটল পেনশন যোজনা কী ? কিভাবে অটল পেনশন যোজনা শুরু করা যায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *